Daily Poribar
Bongosoft Ltd.
ঢাকা মঙ্গলবার, ২৫ জুন, ২০২৪, ১২ আষাঢ় ১৪৩১
প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী রুমানা আলীর

তেঁতুলিয়ায় বাংলাবান্দা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় পরিদর্শন


দৈনিক পরিবার | আহসান হাবিব জুন ৭, ২০২৪, ০৮:৫৮ পিএম তেঁতুলিয়ায় বাংলাবান্দা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় পরিদর্শন

তেঁতুলিয়ায় শতবর্ষী স্কুল বাংলাবান্ধা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় পরিদর্শন করেছেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী রুমানা আলী। শুক্রবার (৭ জুন) বিকেলে উপজেলার শতবর্ষী বাংলাবান্ধা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় পরিদর্শন করেন তিনি। পরিদর্শনে এসে স্কুলটির শিক্ষার্থী, অভিভাবক ও শিক্ষকদের সাথে কথা বলেন। এর আগে তাকে শিক্ষকরা ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানিয়ে অভ্যর্ত্থনা জানান।
তেঁতুলিয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার ফজলে রাব্বির সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের যুগ্ম সচিব ড. মো: আতাউল গনি, প্রতিমন্ত্রীর একান্ত সচিব (উপসচিব) মোঃ মোক্তার হোসেন, পঞ্চগড় জেলা প্রশাসক মো.জহুরুল ইসলাম, পুলিশ সুপার এসএম সিরাজুল হুদা, উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) মাহবুবুল হাসান, মডেল থানার ওসি সুজয় কুমার রায়, বাংলাবান্ধা ইউপি চেয়ারম্যান কুদরত ই খুদা মিলন, সাবেক উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান ইউসুফ আলী স্কুলটির প্রধান শিক্ষক আবু তালেবসহ বিভিন্ন প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক, প্রশাসনের বিভিন্ন কর্মকর্তা, অভিভাবক ও শিক্ষার্থীসহ স্থানীয় ব্যক্তিবর্গ।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী রুমানা আলী বলেন, আমরা চাই মান সম্মত শিক্ষা। তা মানসম্মত শিক্ষা বাস্তবায়নে বর্তমান আওয়ামীলীগ নেতৃত্বাধীন সরকার প্রধান বঙ্গবন্ধুকন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কাজ করে যাচ্ছেন।
প্রতিমন্ত্রী বলেন, আমি খুব ভাগ্যবান যে শতবর্ষী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় পরিদর্শন করতে পেরে। এ স্কুলে এসে কিছু সমস্যার কথা শুনলাম। শিক্ষার্থী ও শিক্ষকরা সমস্যার কথা তুলে ধরেছেন। সে সমস্যা সমাধান হয়ে যাবে শীঘ্রই। এ স্কুলের দ্বিতীয় ভবনটি সম্প্রসারণ করে চারতলা ভবণ করা হবে। আমরা চাই এখান থেকে ভালো পড়াশোনা হোক। এখান থেকে ভালো মেধাবী ছেলে মেয়েরা বের হোক। তারা সব জায়গায় ছড়িয়ে পড়ুক। বাংলাদেশের গর্ব হয়ে তৈরি হোক।
তিনি আরও বলেন, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় স্মার্ট বাংলাদেশের ভিত্তি মানসম্মত প্রাথমিক শিক্ষার লক্ষ্য অর্জনে কাজ করছে। শিক্ষার্থীদের দেশপ্রেম, সততা, নিষ্ঠা ও কর্তব্যপরায়ণতার দীক্ষা গ্রহণ করার পরামর্শ দেন। অনুষ্ঠান শেষে স্কুলের শিক্ষার্থীদের সাথে ফটোসেশনে অংশ নেন।
বাংলাবান্ধা ইউপি চেয়ারম্যান কুদরত ই খুদা মিলন বলেন, বাংলাবান্ধা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়টি ১৯১৩ সালে স্থাপিত হয়েছিল। শতবর্ষী এ স্কুলে আমিও পড়লেখা করেছিলাম। দীর্ঘ এ সময়ের মধ্যে কোন মন্ত্রী এ স্কুলে পদার্পন ঘটেনি। এই প্রথম কোন শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী স্কুলটিতে পদার্পন করায়  আমরা গর্ববোধ করছি। স্কুলটি প্রাক প্রাথমিক থেকে ৮ম শ্রেণি পর্যন্ত। আমরা প্রতিমন্ত্রীর কাছে ৬ষ্ঠ থেকে ৮ম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের জন্য কম্পিউটার ল্যাব ও লাইব্রেরী, নতুন ভবন ও সীমানা প্রাচীর দাবি করলে প্রতিমন্ত্রী তা বাস্তবায়ন করা হবে বলে আশ্বাস দিয়েছেন।

Side banner