Daily Poribar
Bongosoft Ltd.
ঢাকা মঙ্গলবার, ২৫ জুন, ২০২৪, ১২ আষাঢ় ১৪৩১

খুলনায় ভূয়া ম্যাজিস্ট্রেট আটক


দৈনিক পরিবার | মো. জিলহাজ হাওলাদার জুন ১১, ২০২৪, ০৫:৪৩ পিএম খুলনায় ভূয়া ম্যাজিস্ট্রেট আটক

খুলনা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের অভিযানে ম্যাজিস্ট্রেট পরিচয় দিয়ে মোবাইল কোর্ট পরিচালনাকারী  একজন ভূয়া ম্যাজিস্ট্রেট গ্রেফতার করেছে। গ্রেফতারকৃত ব্যক্তি হলেন খুলনার বটিয়াঘাটা উপজেলার ডুবি গ্রামের মোঃ আবুল ফজলের পুত্র এম সোহেল আরমান(৩৮)। ১০ জুন রাতে নগরীর খালিশপুর থানার বৈকালী এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাকে আটক করেছে পুলিশ।
সংশ্লিষ্ট সুত্রে জানা যায়, গত ০৮ জুন সন্ধ্যা ৮টায় খুলনার ডাকবাংলা মোড়ের লাভলু হোটেলে জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সহকারী কমিশনার ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট পরিচয় দিয়ে সোহেল আরমান মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করেন। এসময় তিনি বিভিন্ন অভিযোগে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করে উক্ত হোটেল ম্যানেজারের নিকট হতে জরিমানার টাকা আদায় করেন। পরবর্তীতে ম্যানেজার হোটেল মালিককে জরিমানার বিষয়টি অবগত করলে হোটেল মালিক তাৎক্ষণিকভাবে খুলনা জেলা প্রশাসক কার্যালয়ে যোগাযোগ করে। এসময় হোটেল মালিক জানতে পারেন ঘটনার দিন ঐ এলাকায় খুলনা জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের পক্ষ থেকে কোন মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা হয়নি। তখন তিনি এ ঘটনার বিষয়ে থানায়  একটি অভিযোগ করেন। অভিযোগের প্রেক্ষিতে খুলনা মেট্রোপলিটন গোয়েন্দা পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থলের আশেপাশের সিসি টিভি ফুটেজ সংরক্ষণ করেন। সিসিটিভি ফুটেজের মাধ্যমে অপরাধীকে সনাক্ত করে নগরীর বিভিন্ন এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে পুলিশ। এরই ধারাবাহিকতায় গত ১০ জুন রাতে খালিশপুরের বৈকালী এলাকায় অভিযান চালিয়ে ম্যাজিস্ট্রেট পরিচয় দিয়ে মোবাইল কোর্ট পরিচালনাকারী ভূয়া ম্যাজিস্ট্রেট এম সোহেল আরমান আটক করা হয়। এসময় তার নিকট হতে মোবাইল কোর্ট পরিচালনার জন্য ব্যবহৃত জরিমানা আদায়ের বহি, ম্যাজিস্ট্রেট কর্তৃক কারাদন্ড বা জরিমানার জন্য কয়েদের পরোয়ানা ফরম, জব্দ তালিকা ফরম, অভিযোগ গঠন ফরম, মোবাইল কোর্ট পরিচালনা সংক্রান্ত রিপোর্ট ফরম, সহকারী কমিশনার ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেটের ২ টি সীল এবং ম্যাজিস্ট্রেট পরিচয়ে ব্যবহৃত মোবাইল ফোন উদ্ধার করা হয়েছে।
সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ কামাল হোসেন খাঁন বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, এ বিষয়ে গ্রেফতারকৃত ভূয়া ম্যাজিস্ট্রেট পরিচয় দানকারী প্রতারকের বিরুদ্ধে ভুক্তভোগী লাভলু হোটেলের ম্যানেজারের এজাহারের ভিত্তিতে খুলনা সদর থানায় ১৭০/৪০৬/৪১৯/৪২০/৪৬৬/৪৬৮/৪৭১/৩৪ ধারায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।  মামলা নং-১৪, তারিখ-১০/০৬/২০২৪ খ্রি.।

Side banner