Daily Poribar
Bongosoft Ltd.
ঢাকা মঙ্গলবার, ২৫ জুন, ২০২৪, ১২ আষাঢ় ১৪৩১

লঙ্কানদের বিপক্ষে জয়ে যত রেকর্ড বাংলাদেশের


দৈনিক পরিবার | ক্রীড়া ডেস্ক জুন ৮, ২০২৪, ০৩:৫৭ পিএম লঙ্কানদের বিপক্ষে জয়ে যত রেকর্ড বাংলাদেশের

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের নবম আসরে নিজেদের প্রথম ম্যাচে সেরাটা দিয়েই প্রত্যাশিত জয় পেয়েছে বাংলাদেশ। ২০০৭ বিশ্বকাপের পর এবারই প্রথমবার আইসিসি টি-টোয়েন্টি র‌্যাঙ্কিংয়ে শীর্ষ আটে থাকা কোনো দলকে হারিয়েছে লাল-সবুজেরা। শনিবার (৮ জুন) ডালাসের গ্র্যান্ড প্রেইরি স্টেডিয়ামে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে ১২৪ রানের সংগ্রহ করে শ্রীলঙ্কা। জবাবে ২ উইকেট এবং ১ ওভার হাতে রেখেই লক্ষ্যে পৌঁছে যায় টাইগাররা।
লিটন দাসের ৩৬, তাওহীদ হৃদয়ের ৪০ এবং শেষদিকে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের ১৪ রানে ভর করে বিশ্বকাপে ‘প্রথমবার’ লঙ্কানদের হারায় বাংলাদেশ। এই জয়ে বেশ কিছু রেকর্ডও গড়েছে বাংলাদেশ।
২ উইকেটের জয়ে বিশ্বকাপে শুভসূচনা বাংলাদেশের। এর আগে, দুইবার টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে লঙ্কানদের মুখোমুখি হলেও জয়বঞ্চিত ছিল সাকিব-শান্তরা। তৃতীয়বারের দেখায় জয় পেলো শান্ত বাহিনী।
এই জয় উইকেটের বিচারে সবচেয়ে কম ব্যবধানে জয়। লঙ্কানদের ছুঁড়ে দেওয়া ১২৫ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে ৮ উইকেট হারায় বাংলাদেশ। তবে বাংলাদেশই প্রথম না, আরও ৪ দল এই ব্যবধানে জিতেছে।
তাওহীদ হৃদয়ের ৪ ছক্কা। টাইগারদের যেকোনো ব্যাটারের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ছক্কার মার। এক ইনিংসে সবচেয়ে বেশি ৫ ছক্কা হাঁকিয়েছিলেন তামিম ইকবাল। ৪ ছক্কার কীর্তিতে হৃদয়ের পাশেই আছেন সাকিব আল হাসান, তামিম এবং মোহাম্মদ নাঈম শেখ।
শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টি-টোয়েন্টিতে ষষ্ঠ জয় এটি। কেবল জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে এর চেয়ে বেশি জয় পেয়েছে বাংলাদেশ। রোডেশিয়ানদের বিপক্ষে ১৭ বার জিতেছে লাল-সবুজেরা। এ ছাড়া আয়ারল্যান্ড, আফগানিস্তান এবং ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে পাঁচটি করে জয় আছে বাংলাদেশের। এদিকে ৬ বল হাতে রেখেই লক্ষ্যে পৌঁছে গেছে বাংলাদেশ। বিশ্বকাপে সবচেয়ে কম বল হাতে রেখে জয়ের রেকর্ডও এটি। এর আগে ২০০৭ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ২ ওভার হাতে রেখেই জিতেছিল টাইগাররা।
চতুর্থ উইকেট এবং এর নিচে বাংলাদেশের সবচেয়ে বেশি রানের পার্টনারশিপ। লঙ্কানদের বিপক্ষে লিটন-হৃদয় এই রেকর্ড গড়েন। এর আগে, ২০১৬ বিশ্বকাপে ষষ্ঠ উইকেটে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে রিয়াদ ও মুশফিকের ব্যাটে এই কীর্তি (৫১ রান) গড়েছিল লাল-সবুজেরা।
সবচেয়ে কম রান তাড়া করে জয়ের রেকর্ড। এর আগে, আফগানিস্তানের বিপক্ষে মাত্র ৭৩ রান তাড়া করে জিতেছিল বাংলাদেশ।

Side banner